আধপেটা হয়েই থাকতে হচ্ছে সার্কাসকর্মীদের, খাদ্যসামগ্রীর জন্য আর্জি সরকারকে

0
29

নিজস্ব সংবাদদাতা, কোচবিহার, ২২ এপ্রিল, সার্কাস দেখাতে মেলায় এসেছিলেন, কিন্তু হঠাৎ লকডাউন ঘোষণায় আটকে পরে সার্কাস কর্মীরা৷এক প্রকার অর্ধাহারে কোনক্রমে দিন চলছে তাদের৷কোচবিহারের মাথাভাঙ্গা ১ নং ব্লকের গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার দোল মেলার মাঠে এসেছেন সার্কাস দেখাতে। জানা গেছে, দোল মেলার হওয়ার শেষে হঠাৎ দেশ জুড়ে লক ডাউন ঘোষণা করে সরকার। সেসময় টাকা, পয়সা হাতে যেটুকু ছিল সেটুকু দিয়েই ২৯ জন সার্কাস কর্মীদের পেট চলে। কিন্তু দ্বিতীয় দফায় লক ডাউন বেড়ে যাওয়ায় খাবারের জন্য সমস্যায় পড়েছেন ওই কর্মীরা।তাদের খাবারের সমস্যা জানতে পেরে দুই এক কেজি চাল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন থেকে পেলেও চাহিদা মতো হচ্ছে না। সার্কাস কর্মীদের বাড়ি শিলিগুড়িতে৷ সারাবছর দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সার্কাস দেখিয়ে তাদের সংসার চলে৷কিন্তু এবার যে এমন সমস্যার মুখে পর্বে তা আশা করেনি৷

সার্কাসের কর্মী শিবা দাস মতি রায়রা জানান, দ্বিতীয় দফায় লক ডাউন বেড়ে যাওয়ায় অর্থ ফুরিয়ে গিয়েছে কিন্তু খাদ্য নেই। তাই সরকারের কাছে তাদের আর্জি লকডাউন চলাকালীন তাদের খাদ্যসামগ্রী যাতে দেওয়া হয়।তাদের এরূপ অবস্থার কথা জেনে সংশ্লিষ্ট গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মালতি বর্মন জানান, সার্কাস কর্মীদের জন্য যথা সম্ভব খাদ্য যোগানের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।সরকারকেও এগিয়ে আস্তে হবে, পাশাপাশি তিনি ব্লক প্রশাসনকে এ ব্যাপারে জানিয়েছেন বলে জানান।