আন্তর্জাতিক মার্কেটে যখন স্টেবল হবে তখন কমবে পেট্রোপণ্যের দাম : দিলীপ ঘোষ

নিউটাউন:- পেট্রোপন্যের দাম – তৃণমূল আন্দোলনে – বিজেপি আন্দোলনে নেমেছে তাই দেখেই তৃণমূলও আন্দোলনে নামছে। আন্দোলন করে দাম কমবে না। আন্তর্জাতিক মার্কেটের সাথে যখন স্টেবল হবে তখন কমবে। দাম কমা কোম্পানিগুলো ঠিক করবে। রাজ্যে ভ্যাক্সিন কেলেঙ্কারি, হিংসা চলছে তা নিয়ে মানুষ সরকারের বক্তব্য জানতে চায়। সরকার দাম করাতে পারে না। রেগুলারিটি কমিটি আছে তারাই সিদ্ধান্ত নেন। রাজ্য ৪০টাকার বেশী নিচ্ছে কেন্দ্র সেখানে ২০ টাকা নিচ্ছে রাজ্য সেস কমিয়ে দিক।পার্টির গায়ে অন্য গাছের ছাল। বিষয়টা সবাই জানে। এক গাছের ছাল সবসময় অন্য গাছে লাগে না। আমরা এক্সপেরিমেন্ট করেছিলাম লাগেনি। আমরা আমাদের কাজ করছি। যারা দলে এসেছেন তারা পার্টির আইডিওলজি জেনেই আসছেন। পার্টির স্বার্থর থেকে যখন ব্যাক্তিগত স্বার্থ বড় হয় তখন সমস্যা তৈরি হয়।আমাদের মনোবলে পার্টি বেড়েছে। তাই তারা এসেছিলেন। আমাদের কর্মীদের মনোবল ভাঙেনি। রাজনৈতিক হিংসার কারণে অনেক কার্যকর্তা বসে গিয়েছিলেন। পার্টি যাদের উপর ভর করে এগেছিল তারা আছে সেভাবেই পার্টি এগোবে।
বাবুল সৌমিত্র ফেসবুক পোস্ট – আমি পার্টির পক্ষ থেকে সব পরিষ্কার করে বলে দিয়েছি। যাদের বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে তাদের সমস্যা হচ্ছে, তাদের কিছু গন্ডগোল আছে।

Screenshot 20210710 155727 WhatsApp আন্তর্জাতিক মার্কেটে যখন স্টেবল হবে তখন কমবে পেট্রোপণ্যের দাম : দিলীপ ঘোষ


পাবলিক অ্যাকাউন্ট কমিটি নিয়ে –
সরকার সমস্ত ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখতে চাইছে। যাতে সামান্যতম প্রশ্ন কেউ তুলতে না পারে তার ব্যবস্থা করতে চাইছে। সরকার ও বিরোধী দুটি রোলই প্লে করতে চাইছেন। সরকারের কুকীর্তি যাতে সামনে না আসে তারজন্য এই ব্যবস্থা। বিরোধীরা যে নাম পাঠাত এতদিন সেখান থেকেই করা হত। আমরা যে নাম পাঠিয়েছি তার থেকে করা হয়নি। সরকার আমাদের সহযোগিতা চাইনা। তাই বিরোধীর ভুমিকা আমরা ভালো করে পালন করব।পুলিশ কর্তার কন্যা নিগৃহীত -পুলিশ ঠুঁটো জগন্নাথ। এফিসিয়েন্ট পুলিশ কর্মীদের গ্যারেজ করা হয়। পুলিশ চাকরি করে তাদেরও কিছু করার নেই। কুচবিহারের প্রাক্তন এসপিকে সত্যি রিপোর্ট দেওযায় কেমন করে রগরানো হচ্ছে তা সবাই দেখতে পাচ্ছেন। পার্টির লোকেরা যা বলে দেয় পুলিশ তাই করবে।কোর্ট সরকার কে সময় দিতে চান তাই ভ্যাক্সিন মামলায় পুলিশের তদন্তে সায় দিয়েছেন। তবে খুব তাড়াতাড়ি সরকারের সমস্ত সিস্টেম ফেলিওর করবে।