আবার বেড়ে গেলো পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম

আবার

আবার বেড়ে গেলো পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম।  প্রতিদিনই ঊর্ধ্বমুখী পেট্রল ও ডিজেলের দাম। আর তাতেই নাভিশ্বাস মধ্যবিত্তের। পেট্রলের পর রাজ্যে ইতিমধ্যেই ডিজেলের দামও সেঞ্চুরি পেরিয়েছে। লিটারে বাড়ল ৩৫ পয়সা করে। বৃহস্পতিবারও দেশে জ্বালানির দাম বেড়েছিল ৩৫ পয়সা করে। এই নিয়ে পর পর চারদিন বাড়ল পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম। জ্বালানির দাম বেড়েই চলেছে। আর এর জেরে নাজেহাল মানুষ। জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ায় জিনিসপত্রের দামে প্রভাব পড়েছে।

 

চড়তে শুরু করেছে দাম। তেলের দাম না কমায় সেই সমস্যা কমবে না বলে মনে করা হচ্ছে। বাংলার মুর্শিদাবাদে ডিজেলের দাম ১০০.০৩ টাকা, কৃষ্ণনগরে ১০০ টাকা ১৬ পয়সা। পুরুলিয়ার ঝালদায় দাম ১০০ টাকা ৪৯ পয়সা, দার্জিলিঙে ১০০.২৯ টাকা। সেই রকমই দেশের বিভিন্ন শহরে জ্বালানির দাম বিভিন্ন। এবার দেখে নেওয়া যাক দেশের কোন শহরে জ্বালানির দাম কত।

 

দিল্লিতে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম দাঁড়িয়েছে, ১০৭.২৪ টাকা এবং ৯৫ টাকা ৯৭ পয়সা প্রতি লিটার রয়েছে। দামের তালিকায় চার মেট্রো শহরের মধ্যে দাম সবথেকে বেশি মুম্বইয়ে। সেখানে লিটার প্রতি পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম হল ১১৩ টাকা ১২ পয়সা এবং ১০৪ টাকা। কলকাতায় এখন পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে ১০৭.৪৪ পয়সা এবং ডিজেলের দাম ৯৯ টাকা ০৮ পয়সা। চেন্নাইয়ে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম দাঁড়িয়েছে ১০৪.২২ এবং ১০০.২৫ টাকা প্রতি লিটার।

 

আর ও পড়ুন    বিশ্বের যে সমস্ত দেশ হাই-প্রোফাইল রাজনীতিবিদদের শেষ ঠাঁই 

 

লাগাতার মূল্যবৃদ্ধিতে ত্রাহি ত্রাহি রব দেশজুড়ে। প্রতিদিনই পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্রকে আক্রমণ করছে বিরোধীরা। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রকে কটাক্ষ করতে সম্প্রতি নতুন পথ নেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। টুইটারে লেখেন, ‘মোদি সরকারের জ্বালানি লুঠে একটি নতুন শব্দ তৈরি হয়েছে। ফিলিয়নেয়ার। যাঁরা দেশে ট্যাঙ্ক ভরতি করে তেল ভরতে পারছেন, তাঁরাই ফিলিয়নেয়ার। কেন্দ্র সরকার আমজনতার সঙ্গে ঘৃণ্য রসিকতা করছে।’

 

উল্লেখ্য, আবার বেড়ে গেলো পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম।  প্রতিদিনই ঊর্ধ্বমুখী পেট্রল ও ডিজেলের দাম। আর তাতেই নাভিশ্বাস মধ্যবিত্তের। পেট্রলের পর রাজ্যে ইতিমধ্যেই ডিজেলের দামও সেঞ্চুরি পেরিয়েছে। লিটারে বাড়ল ৩৫ পয়সা করে। বৃহস্পতিবারও দেশে জ্বালানির দাম বেড়েছিল ৩৫ পয়সা করে। এই নিয়ে পর পর চারদিন বাড়ল পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম। জ্বালানির দাম বেড়েই চলেছে। আর এর জেরে নাজেহাল মানুষ। জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ায় জিনিসপত্রের দামে প্রভাব পড়েছে।