উত্তরপ্রদেশে উত্তেজনাপ্রবণ আসনের সংখ্যা এবারে বেড়ে হলো ৭৩ টি

আসনের

উত্তরপ্রদেশে উত্তেজনাপ্রবণ আসনের সংখ্যা এবারে বেড়ে হলো ৭৩ টি। ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা  ভোট। দেশের সবথেকে বড় রাজ্যে। সাত দফায় হবে নির্বাচন। ফল ১০ মার্চ। ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হতেই ময়দানে নেমে পড়েছে রাজ্য পুলিশ। তালিকা তৈরি করেছে ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌ আসনের। তাতে দেখা গেল গত ভোটের থেকে এবার সেই আসনের সংখ্যা বেড়ে হল ৭৩। ২০১৭ সালের ভোটে ৩৮টি আসনকে ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌ ঘোষণা করেছিল রাজ্য পুলিশ।

 

এবার আরও ৩৫টি বাড়ল সেই সংখ্যা। যদিও প্রথমে ৯৫টি আসনকে ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌ ঘোষণা করতে চেয়েছিল তারা। শেষে কেটেছেঁটে তা নামে ৭৩–এ। এই তালিকায় ঢুকেছে কনৌজ। যেখানে সম্প্রতি তিন সুগন্ধি ব্যবসায়ীর বাড়ি তল্লাশি চালিয়ে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

 

বিতর্কিত বিধায়ক মুখতার আনসারির কেন্দ্র মৌ সদর এবং বিজয় মিশ্রর কেন্দ্র জ্ঞানপুরও এই তালিকায়। প্রাক্তন বিধায়ক আতিক আহমেদের এলাহাবাদ (‌পশ্চিম)‌–এ ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌। আতিক এখন জেলে।কোনও বিধানসভা কেন্দ্রকে কীসের ভিত্তিতে ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌ ঘোষণা করা হয়?‌

 

আর ও পড়ুন      পুরভোটে আমরা কোথাও জোর করে জিততে চাই না, বললেন সৌগত 

 

অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল প্রশান্ত কুমার জানালেন, কোনও কেন্দ্রে কোন শ্রেণী, জাতি, উপজাতির বাস কী রকম, জাতি বা শ্রেণী সংক্রান্ত হিংসা, কে প্রার্থী, এসব বিবেচনা করে এই তালিকাভুক্ত করা হয়। ওই কেন্দ্রে আগের ভোটে হিংসা হয়েছিল কিনা, তাও দেখা হয়। ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌ আসনের সব বুথে বড় নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়।

 

২০১৭ সালে যে ৩৮টি আসন এই তালিকায় ছিল, তার মধ্যে ৩২টি এবারও রয়েছে গিয়েছে। জৌনপুউরের শাহগঞ্জ, মারিয়াহু, গাজিয়াবাদের লোনি, প্রয়াগরাজের এলাহাবাদ (‌উত্তর)‌, সম্ভলের গুন্নৌর, অওরাইয়ার দিবিয়াপুর এই তালিকা থেকে বাদ পড়েছে।তালিকায় সবথেকে বেশি আসন রয়েছে প্রয়াগরাজের। ১২টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে আটটি ‘‌উত্তেজনাপ্রবণ’‌। তার পরেই রয়েছে বাল্লিয়া জেলা। সেখানকার পাঁচ আসন এই তালিকায়। বাঘপত, সাহারানপুর, সিদ্ধার্থনগর, বাহরাইচ, জৌনপুর, আম্বেদকর নগর, আজমগড়ের তিনটি করে আসন এই তালিকায়।