বাংলায় করোনা সংক্রমণের হার একলাফে বেড়ে ৩ শতাংশে

একলাফে

বাংলায় করোনা সংক্রমণের হার একলাফে বেড়ে ৩ শতাংশে।  পুজো মিটতে না মিটতেই  বাংলায় করোনা সংক্রমণ উদ্বেগ বাড়াচ্ছে।   সোমবার করোনা সংক্রমণের হার একলাফে বেড়ে ৩ শতাংশে পৌঁছে গেল। বাংলায় ১.৫ শতাংশের আশেপাশে ঘোরাফেরা করছিল সংক্রমণের হার। পুজোর পর তা দ্বিগুণ হয়ে যাওয়ার চিন্তা বাড়ছে। বিশেষজ্ঞরা আগেই সাবধান করেছিলেন। এখন উৎসবমুখী বাংলাকে দুষছেন তাঁরা।

 

 

আর ও পড়ুন    কাজে যাওয়ার আগে স্ত্রীকে চুমু খেয়ে যান, তাহলেই বাড়বে আয় এবং আয়ু !

 

রাজ্য   স্বাস্থ্য দফতরের রিপোর্টে জানানো হয়েছে, বিগত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৯০। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লক্ষ ৮১ হাজার ২২০ জন। রাজ্যে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৮৯৮৯। এদিন মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এদিন করোনার দৈনিক সংক্রমণের হার বেড়ে ৩.০০ হয়েছে। এদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা যেমন তাৎপর্যপূর্ণভাবে বেড়েছে, তেমনই টেস্টিং সে অর্থে অনেক কম হয়েছে, তাই সংক্রমণের হার এক লাফে উঠে গিয়েছে তিনের উপরে।

 

রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মোট আক্রান্ত ১৫ লক্ষ ৮১ হাজার ২২০ জনের মধ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা রোগী ৭ হাজার ৪১৬ জন। এদিন ৫ জন কমেছে সক্রিয়ের সংখ্যা। দৈনিক আক্রান্ত ৬৯০ জন। আর গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা মুক্ত হয়েছেন ৬৮৩ জন। মোট করোনা মুক্ত হলেন ১৫ লক্ষ ৫৪ হাজার ৮১৫ জন। সুস্থতার রেট হয়েছে ৯৮.৩৩ শতাংশ।

 

করোনা বুলেটিনে জানানো হয়েছে এদিন পর্যন্ত করোনা টেস্ট হয়েছে ১ কোটি ৮৭ লক্ষ ২০২। ১৪৯টি ল্যাবরেটরিতে এই টেস্টিং হচ্ছে। ১০ লক্ষ জনের মধ্যে টেস্টিং রেট ২০৭৭৮০। এদিন টেস্টিং হয়েছে ২৩০১৯ জনের। মোট টেস্টিংয়ের নিরিখে এদিন করোনা সংক্রমণের হার ৩.০০ শতাংশ। আক্রান্তের হারে কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগনায় জেলায় আবার উদ্বেগ বাড়ছে।

 

কলকাতায় করোনা আক্রান্ত ৩১৯২৫৬। এদিন ১৯৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরেই আছে উত্তর ২৪ পরগনা। এখানে আক্রান্ত ৩২৭৪০৪ জন। এদিন আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩ জন। তারপরেই আছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৪৮ জন বেড়ে হয়েছে ৯৯৯৭২। হাওড়ায় আক্রান্ত ৯৭৮২১। এদিন আক্রান্ত হয়েছেন ৫১ জন। হুগলিতে ৬৭ জন বেড়ে আক্রান্ত ৮৫৩২৯ জন।সোমবারের করোনা বুলেটিনে ১০০-র উপরে সংক্রমণ কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনায়। আর ৫০-এর উপরে করোনা সংক্রমণ, হুগলি, হাওড়ায়। ৫০-এর ঠিক নিচেই দক্ষিণ ২৪ পরগনা। বাকি সব জেলায় ২৫-এর নিচে করোনার দৈনিক সংক্রমণ। সবথেকে কম সংক্রমণ ১ জন মুর্শিদাবাদে।