করতাল বাজিয়ে কীর্তন করে মানুষের মন জয় করলেন শান্তিপুরের বিধায়ক

কীর্তন

করতাল বাজিয়ে কীর্তন করে মানুষের মন জয় করলেন শান্তিপুরের বিধায়ক। হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে গিয়ে করতাল  বাজিয়ে কীর্তন করে মানুষের মন জয় করলেন শান্তিপুরের নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়ক ব্রজকিশোর গোস্বামী।

 

বুধবার সন্ধ্যায় শান্তিপুর ১৬  নম্বর ওয়ার্ডের চর সারাগরে এক হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এলাকার মানুষ। সেখানে শান্তিপুরের বিধায়ক ব্রজকিশোর গোস্বামী কে আমন্ত্রণ করা হয় সেইমতো এলাকার মানুষের আমন্ত্রণ রক্ষা করতে হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে হাজির হয় ব্রজকিশোর গোস্বামী।

 

এরপর নিজেই করতাল বাজিয়ে কীর্তন করে হরিনাম সংকীর্তনে আগত মানুষের মন জয় করলেন বিধায়ক কিশোর গোস্বামী। সাথে হরিনাম সংকীর্তনে অংশগ্রহণ করেন শান্তিপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি বিন্দাবন প্রামাণিক। তিনিও সাধারণ মানুষের সাথে দুই হাত তুলে হরি নামে মেতে উঠলেন।

 

ব্রজকিশোর গোস্বামী জানান এই এলাকায় যখনই কোন উৎসব হয় তখনই আমি এসে থাকি, আজ বিধায়ক হওয়ার পরে প্রথমবার এই এলাকার সাধারণ মানুষের আমন্ত্রণ পেয়ে আমি হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করি। হরিনাম সংকীর্তনে সাধারন মানুষের সাথে হরিনাম করতে পেরে আমি যথেষ্টই খুশি।

 

আর ও পড়ুন    পারিবারিক অশান্তির জেরে প্রকাশ্য রাস্তায় মাকে এলোপাতাড়ি কোপ ছেলের 

 

উল্লেখ্য, করতাল বাজিয়ে কীর্তন করে মানুষের মন জয় করলেন শান্তিপুরের বিধায়ক। হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে গিয়ে করতাল  বাজিয়ে কীর্তন করে মানুষের মন জয় করলেন শান্তিপুরের নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়ক ব্রজকিশোর গোস্বামী। বুধবার সন্ধ্যায় শান্তিপুর ১৬  নম্বর ওয়ার্ডের চর সারাগরে এক হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এলাকার মানুষ।

 

সেখানে শান্তিপুরের বিধায়ক ব্রজকিশোর গোস্বামী কে আমন্ত্রণ করা হয় সেইমতো এলাকার মানুষের আমন্ত্রণ রক্ষা করতে হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে হাজির হয় ব্রজকিশোর গোস্বামী।  এরপর নিজেই করতাল বাজিয়ে কীর্তন করে হরিনাম সংকীর্তনে আগত মানুষের মন জয় করলেন বিধায়ক কিশোর গোস্বামী। সাথে হরিনাম সংকীর্তনে অংশগ্রহণ করেন শান্তিপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি বিন্দাবন প্রামাণিক। তিনিও সাধারণ মানুষের সাথে দুই হাত তুলে হরি নামে মেতে উঠলেন।

 

ব্রজকিশোর গোস্বামী জানান এই এলাকায় যখনই কোন উৎসব হয় তখনই আমি এসে থাকি, আজ বিধায়ক হওয়ার পরে প্রথমবার এই এলাকার সাধারণ মানুষের আমন্ত্রণ পেয়ে আমি হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করি। হরিনাম সংকীর্তনে সাধারন মানুষের সাথে হরিনাম করতে পেরে আমি যথেষ্টই খুশি।