কোয়ারেন্টিনের নির্বাসন কাটিয়ে এবার ঘরে ফেরার পালা

0
48

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব বর্ধমান, ১৮ এপ্রিল, কোয়ারেন্টিনের নির্বাসন কাটিয়ে এবার ঘরে ফেরার পালা। কেউ ১৭দিন তো কেউ আবার ২০দিন নিজের বাড়ি,পরিবার ছেড়ে ভিন জায়গায় আটকে থাকার পর প্রশাসনের উদ্যোগে শুরু হলো সেই সমস্ত পরীক্ষিত, সুস্থ মানুষদের তাঁদের নিজের ঠিকানায় ফিরিয়ে দেবার উদ্যোগ।

শুত্রুবার পূর্ব বর্ধমান জেলার বর্ধমান সদর থানার মির্জাপুর এবং মাধবডিহি থানা এলাকায় কাজের সূত্রে আসা বাঁকুড়া,পুরুলিয়া সহ বীরভূম জেলার নলহাটি এলাকার বাসিন্দা প্রায় ৩৫ জন কে নিজেদের বাড়ি ফিরিয়ে দেবার ব্যবস্থা করল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। পাশাপাশি, এদিন রাতেও গলসি সহ বর্ধমানের বিভিন্ন কোয়ারইন্টান সেন্টারে থাকা প্রায় ১৫ জনকে কলকাতার উস্থি থানা এলাকায়, পোস্তা এলাকায় এবং কুচবিহার জেলায় ফেরত পাঠালো প্রশাসন।

এদিন একাধিক সরকারি ও বেসরকারি বাস ও গাড়ি এই সমস্ত মানুষদের নিয়ে তাঁদের নিজেদের গন্তব্যের দিকে রওনা হয়। প্রত্যেক গাড়িতে এই সমস্ত মানুষদের চিকিৎসা সংক্রান্ত কাগজপত্র সঙ্গে নিয়ে জেলা পুলিশের কর্মী এবং সিভিকরা হাজির ছিলেন। উল্লেখ্য, লকডাউন শুরু হয়ে যাওয়ায় পর পূর্ব বর্ধমান জেলার বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়েন ভিন জেলার বহু মানুষ।

প্রশাসনের নির্দেশে সেই সমস্ত মানুষদের বিভিন্ন কোয়ারেন্টিন সেন্টারে রেখে তাঁদের চিকিৎসা,খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। এই ভাবেই কেউ ১৭দিন আবার কেউ ২০ দিন ধরে সব কিছু ছেড়ে লকডাউনের শর্ত পূরণ করেছেন। আর এরপর প্রশাসনের নির্দেশে এদিন বর্ধমানের মির্জাপুর এবং মাধবডিহি এলাকার প্রায় ৩৫ জন পুরুষ,মহিলা ও শিশুদের ফেরৎ পাঠানোর বন্দোবস্ত করলো পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, এই প্রক্রিয়া এখন লাগাতার চলবে।কোয়ারইন্টানের মেয়াদ শেষ করে এবার বাড়ি ফেরার পালা।