চিরনিদ্রায় শায়িত পরিচালক সাহিত্যিক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত

0
10

নিউজ ডেস্ক , ১০ জুন ২০২১ :৭৭ বছর বয়সে চিরনিদ্রায় গেলেন পরিচালক সাহিত্যিক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় দক্ষিণ কলকাতায় নিজের বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। তাঁর ডায়ালিসিস চলছিল। বৃহস্পতিবারও ডায়ালিসিস হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভোরবেলা তাঁর স্ত্রী সোহিনী দাশগুপ্ত দেখেন, বুদ্ধদেব বাবুর শরীর ঠান্ডা হয়ে গিয়েছে। শরীরে আর প্রাণ নেই। ঘুমের মধ্যেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

পরিবার সূত্রে খবর, তাঁর দুই মেয়েই মুম্বইয়ে থাকেন। করোনাবিধির কারণে তাঁরা আসতে পারছেন না। বৃহস্পতিবারই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর শেষকৃত্য় সম্পন্ন হবে। কেবল পরিচালনা নয়, সাহিত্য জগতেও সমান ভাবে প্রসিদ্ধ ছিলেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। বিশিষ্ট পরিচালক, কবির প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।


১৯৬৮ সালে ১০ মিনিটের একটি তথ্যচিত্র ‘দা কন্টেন্ট অফ লাভ ‘ দিয়ে নিজের চলচ্চিত্র কেরিয়ার শুরু করেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। তাঁর পরিচালিত ৫টি ছবি-বাঘ বাহাদুর, চরাচর, লাল দরজা, মন্দ মেয়ের উপাখ্যান, কালপুরুষ জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। পরিচালক হিসেবেও তিনি নিজেও দু’বার জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন। দেশের বাইরে বিদেশেও একাধিক সম্মান পেয়েছেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব, বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবেও প্রশংসা পেয়েছে তাঁর ছবি। পরিচালকের পাশাপাশি একাধারে কবিও ছিলেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। কফিন কিংবা সুটকেস, হিমযোগ, রোবটের গান, শ্রেষ্ঠ কবিতা ইত্যাদি বহু কবিতা লিখেছেন তিনি। বুদ্ধদেবের দাশগুপ্তের প্রয়াণে চলচ্চিত্র থেকে সাহিত্য জগতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পরিচালক গৌতম ঘোষ থেকে পরিচালক অনীক দত্ত সহ পঙ্কজ ত্রিপাঠি , প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং আরো অনেক বিশিষ্ট ব্যাক্তিরা শোক প্রকাশ করেছেন।