জমি দখলকে কেন্দ্র করে মারপিট ও ভাঙচুর, আহত বেশ কয়েকজন

0
33

নিজস্ব সংবাদদাতা, আসানসোল, ১৪ডিসেম্বের, সরকারি জমি কার দখলে থাকবে এই নিয়ে দুই কারখানার নিরাপত্তা রক্ষীদের মধ্যে মারপিট গাড়ি এবং অস্থায়ী শিবির ভাঙচুরের ঘটনায় রণক্ষেত্রে চেহারা নেয় জামুরিয়া থানার অন্তর্গত ইকড়া ব্রিজ এলাকা।বহিরাগত দুষ্কৃতীদের নিয়ে জমি দখলের অভিযোগ।এই ঘটনায় দুপক্ষের বেশ কয়েকজন আহত। ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন রয়েছে।
সূত্রের খবর শ্যামসেল কারখানা এবং গগন ফেরোটেক কারখানার মাঝখানে প্রচুর খাস জমি রয়েছে শ্যামসেল কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজার সুমিত চক্রবর্তী দাবি করেন সরকারের পক্ষ থেকে সেই জমি তাদেরকে লিজ বাবদ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সেই জমি তে যখনই তারা নির্মাণের কাজ শুরু করেন তখনই গগন ফ্যাক্টরির পক্ষ থেকে বাধা দেওয়া হয়। এর আগেও গগন ফ্যাক্টরি পক্ষ থেকে তাদের নিরাপত্তারক্ষীদের মারধরের অভিযোগ ওঠে।গতকাল সন্ধ্যার সময় তাদের বেশ কয়েকজন নিরাপত্তারক্ষীকে মারধর করে গগন ফ্যাক্টরি লোকজন।অবশেষে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। আজ সকালে তাদের নির্মাণকার্য চলাকালীন বেশ কিছু গগন ফেরোটেক কোম্পানির পক্ষ থেকে বহিরাগত দুষ্কৃতীদের নিয়ে এসে তাদের শ্রমিক এবং নিরাপত্তারক্ষীদের বেধড়ক মারধর করে।এ ঘটনায় তাদের বেশ কয়েকজন নিরাপত্তারক্ষী এবং শ্রমিক আহত হন ।তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা খুবই সংকটজনক।
অপরদিকে গগন ফ্যাক্টরির পক্ষ থেকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জানান সরকারের পক্ষ থেকে তাদের কে দেওয়া জমি দখল করার চেষ্টা করছে শ্যামসেল কর্তৃপক্ষ। বারংবার অনুরোধ করেও কোনো লাভ হয়নি ।উপরন্তু আজ সকালে তাদের বেশ কয়েকজন গাড়ি চালককে মারধর করা হয় বলে তিনি দাবি করেন।এই গোটা ঘটনাটাই চাপা উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়।