উদ্বোধনের আগেই ‘হ্যাক’ হয়ে গেল ট্রাম্পের নতুন সোশ্যাল মিডিয়া

ট্রাম্পের

উদ্বোধনের আগেই ‘হ্যাক’ হয়ে গেল ট্রাম্পের নতুন সোশ্যাল মিডিয়া।  উদ্বোধনের আগেই ‘হ্যাক’ হয়ে গেল ট্রাম্পের নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ‘ট্রুথ সোশ্যাল’। ফেসবুক, টুইটার ও ইউটিউবের মতো বড় বড় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো ট্রাম্পকে তাদের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে না দেওয়ায় ট্রাম্প নিজেই একটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালুর উদ্যোগ নেন। টুইটার ব্যবহারকারীরা ট্রাম্পের ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এটিতে ফেক অ্যাকাউন্ট খুলেছে। অর্থাৎ, নতুন ব্যবহারকারীদের সাইন আপ করার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে খোলার আগেই তারা সাইটটিতে অ্যাক্সেস করেছে। ট্রাম্প গতকাল বুধবার ঘোষণা করেছিলেন যে, তিনি একটি মিডিয়া নেটওয়ার্ক চালু করছেন। এটির নাম ‘ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপ’ (টিএমটিজি)।

 

এর মধ্যে রয়েছে ‘ট্রুথ সোশ্যাল’ নামক একটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘এটি বিগ টেকের অত্যাচারের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর একটি প্রচেষ্টা।’ এর আগে, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে দাঙ্গার পর ট্রাম্পকে বেশ কয়েকটি বড় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। ঘোষণার মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরে, টুইটার ব্যবহারকারীরা ট্রাম্প এবং সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের ভুয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ট্রুথ সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মের বিটা-ভার্সন হ্যাক করতে সক্ষম হয়েছে।

 

আর ও পড়ুন    মৌমাছির কামড়ে মুর্শিদাবাদে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধার

 

‘ডোনাল্ড জে ট্রাম্প’ নামে যে ব্যবহারকারী সেখানে রয়েছে, তার পিন করা পোস্টটি ছিল একটি ‘মলত্যাগকারী শূকরের’। যেটি দেখে আপাতদৃষ্টিতে সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ব্যঙ্গ করার চেষ্টা বলে মনে করা হচ্ছে। ট্রাম্পের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্ল্যাটফর্মটি আগামী মাসে পরীক্ষামূলকভাবে এবং ২০২২ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকের মধ্যে পুরোদমে চালু হবে বলে জানানো হয়েছিল।

 

সূত্রের খবর অনুযায়ী, ব্যবহারকারীরা ‘ডোনাল্ডট্রাম্প’ এবং ‘মাইকপেন্স’ নামে দুটি অ্যাকাউন্টও তৈরি করেছে। এমনকি ‘ডোনালড জে ট্রাম্প’ হ্যান্ডেলটি সাবেক এ প্রেসিডেন্টকে উপহাস করার জন্য কেউ হ্যাক করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

উল্লেখ্য, উদ্বোধনের আগেই ‘হ্যাক’ হয়ে গেল ট্রাম্পের নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ‘ট্রুথ সোশ্যাল’। ফেসবুক, টুইটার ও ইউটিউবের মতো বড় বড় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো ট্রাম্পকে তাদের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে না দেওয়ায় ট্রাম্প নিজেই একটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালুর উদ্যোগ নেন। টুইটার ব্যবহারকারীরা ট্রাম্পের ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এটিতে ফেক অ্যাকাউন্ট খুলেছে। অর্থাৎ, নতুন ব্যবহারকারীদের সাইন আপ করার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে খোলার আগেই তারা সাইটটিতে অ্যাক্সেস করেছে। ট্রাম্প গতকাল বুধবার ঘোষণা করেছিলেন যে, তিনি একটি মিডিয়া নেটওয়ার্ক চালু করছেন। এটির নাম ‘ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপ’ (টিএমটিজি)।