নাচতে নাচতে চার দিনেই কোটিপতি!

নাচতে

নাচতে নাচতে চার দিনেই কোটিপতি । ধুমধাম সহকারে দক্ষিণী রীতিনীতি মেনে বিয়ে করেছেন সামান্থা রুথ প্রভু। সে হিন্দু মতে এবং খ্রীষ্টান মতে বিয়ে করে ছিল। কিন্তু সেই বিয়ে বেশি দিন টেকেনি  বিবাহবিচ্ছেদের পর নিজের পারিশ্রমিক বাড়িয়ে দিয়েছেন দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু। এই পারিশ্রমিক বাড়ানোর খবর বেশ কয়েক দিন আগের। তবে নতুন খবর  হচ্ছে, আল্লু অর্জুনের ‘পুষ্প : দ্য রাইজ পার্ট ওয়ান’ সিনেমার একটি আইটেম গানে কোমর দোলাবেন সামান্থা।

 

আর সেই গানের শুট হবে মাত্র চার দিন, হায়দরাবাদের রামোজি রাও ফিল্ম সিটির বিশেষ সেটে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই চার দিন গানের শুট করতে সামান্থা পারিশ্রমিক হাঁকিয়েছেন এক কোটি ৭৫ লাখ টাকার বেশি, ট্যাক্স ও অন্যান্য খরচ মিলে দুই কোটি টাকা ছাড়াবে। ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’ ওয়েব সিরিজের দ্বিতীয় মৌসুমের ব্যাপক সাফল্য পাওয়ায় পারিশ্রমিক বৃদ্ধি করেছেন এই দক্ষিণী ডিভা।

 

1 257 নাচতে নাচতে চার দিনেই কোটিপতি!

 

বহুল প্রতীক্ষিত দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র ‘পুষ্প : দ্য রাইজ পার্ট ওয়ান’ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে এ বছরের ১৭ ডিসেম্বর। সিনেমাটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারকা অভিনেতা আল্লু অর্জুন, ফাহাদ ফাসিল ও রশ্মিকা মন্দানা। সুকুমারের পরিচালনায় সিনেমাটিতে শ্রীভাল্লির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রশ্মিকা মন্দানা এবং লরি ড্রাইভার পুষ্প রাজের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আল্লু অর্জুন। সিনেমাটি তেলেগু, তামিল, কন্নড়, মালয়ালাম ও হিন্দি ভাষায় মুক্তি পাবে। সংগীতায়োজন করেছেন দেবী শ্রী প্রসাদ।

 

প্রধানত তেলুগু ও তামিল চলচ্চিত্র শিল্পে ​​কাজ করেন; এবং চারটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারসহ বিভিন্ন পুরস্কার অর্জন করেছেন। সামান্থা ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে বেড়ে ওঠেন এবং ছেলেবেলাতেই মডেলিং পেশার প্রতি আকৃষ্ট হয়েছিলেন। তিনি দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পে নিজেকে একজন নেতৃস্থানীয় অভিনেত্রী হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

 

আর ও পড়ুন    রজনীকান্তের চোখে জল, কেন জানেন?

 

২০১২ সালে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন,”গভীরভাবে প্রেমে এবং তার সম্পর্কে বেশ সন্তুষ্ট”। তিনি বলেন, “সে এবং আমি খুব শক্তিশালী এবং আমি এতে খুবই খুশি”। তবে তিনি ভবিষ্যত পরিকল্পনা প্রকাশ করতে আপত্তি জানান। তিনি কস্টিউম ডিজাইনার নিরজা কনার ঘনিষ্ঠ বন্ধু। ২০০৫ সালে, সামান্থা তার ব্রেক আপের ঘোষণা দেন। তিনি জাবারদাস্ত চলচ্চিত্রের সহ-শিল্পী সিদ্ধার্থের সঙ্গে প্রায় সাড়ে দুই বছরের মতো সময় ধরে ডেট করেন।

 

তবে তারা তাদের এই সম্পর্ক প্রকাশ্যে স্বীকার না করলেও, প্রায়ই তাদেরকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে একসঙ্গে দেখা যায়। এরপর ২০১৫ সালের দিকে তিনি সম্পর্ক করে তোলেন আরেক তেলুগু সুপারস্টার নাগা চৈতন্যর সঙ্গে। ২০১৭ সালের ২৯ জানুয়ারি তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়।  ২০১৭ সালের অক্টোবর ৭ এবং ৮ তারিখে তারা যথাক্রমে হিন্দু এবং খ্রিষ্টান ধর্মমতে বিয়ে করেন গোয়ায়। ২রা অক্টোবর, ২০২১-এ এই দম্পতির বিচ্ছেদ ঘটে চৈতন্য এবং সামান্থাকে একত্রে তিনটি চলচ্চিত্রে দেখা গিয়েছে এবং সেগুলো বক্স অফিসে ব্লকবাস্টার ঘোষিত হয়েছে।