পান পাতার উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন

পাতার

পান পাতার উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন।  অমিতাভ বচ্চনের সেই বিখ্যাত গান টি ” খাইকে পান বানারসি ওয়ালা  পান কে নিয়ে যেমন গান ও রয়েছে ঠিক তেমনি পানের উপকারিতাও প্রচুর রয়েছে।পান খাওয়ার নেশা প্রচুর ব্যক্তিদের আছে। আমাদের দেশে পানের ব্যবহার নানারকম ভাবে করা হয়ে থাকে।

 

পান সঠিকভাবে খাওয়া হলে, নি:শ্বাসের দুর্গন্ধ রোধ করে, পেটে কৃমি প্রতিরোধ করে ( drinking ), খিদে বাড়ানোর পাশাপাশি খাবার হজম করে এবং মাড়িকে শক্তিশালী রাখে।একটি পান পাতায় ৮৫.৪% আর্দ্রতা, ৩.১% প্রোটিন, ০.৮% চর্বি, ২.৩% খনিজ, ২.৩% ফাইবার এবং ৬.১% কার্বোহাইড্রেট থাকে। এছাড়াও এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, ক্যারোটিন, থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, নিয়াসিন এবং ভিটামিন-সি। পান অনেক রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে।

 

পান পাতার রসে অনেক ধরনের গুন রয়েছে। ওষুধ তৈরিতেও ব্যবহৃত হয়। আসুন পান পাতার অন্যান্য উপকারিতা সম্পর্কে জেনেনি:

 

আর ও  পড়ুন     আপনি চাইলেই বউ কিনতে পারবেন এই বাজার থেকে

 

 

শ্বাস নিতে সমস্যা:

যদি কারও শ্বাস নিতে সমস্যা হয়, তাহলে সর্ষে তেলে পান পাতা সেদ্ধ করে বুকের ওপর রাখলে, কাশি এবং শ্বাসকষ্টে আরাম পাওয়া যায়।

আঘাত পেলে :

যদি কোন সাধারণ আঘাত হয়, তাহলে সেখানে পান পাতার রস লাগিয়ে ক্ষতের উপর বেঁধে ব্যান্ডেজ করে রাখলে উপশম হয়। এটি দিনে দুবার করতে হবে।

ফোঁড়া হলে:

ফোঁড়া হলে পান পাতা কম আঁচে ভেজে, এর মধ্যে ক্যাস্টর অয়েল দিয়ে, ফোঁড়ার উপরে বেঁধে রাখতে হবে। এটি দিনে তিন থেকে চারবার করলে, উপশম পাওয়া যাবে।

মাথাব্যথা হলে:

পান পাতা পিষে বেদনাদায়ক স্থানে লাগালে আরাম পাওয়া যায়।

পিঠব্যথা হলে :

পান পাতার ওপর তেল দিয়ে গরম করে সেই তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলে, আরাম পাওয়া যাবে।

স্নায়ু ব্যথায় :

পান পাতার রসে এক চামচ মধু মিশিয়ে দুবার পান করুন।

প্রস্রাব কম হলে :

পান পাতার রস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে হবে।

 

উল্লেখ্যঃঅমিতাভ বচ্চনের সেই বিখ্যাত গান টি ” খাইকে পান বানারসি ওয়ালা”, পান কে নিয়ে যেমন গান ও রয়েছে ঠিক তেমনি পানের উপকারিতাও প্রচুর রয়েছে।পান খাওয়ার নেশা প্রচুর ব্যক্তিদের আছে। আমাদের দেশে পানের ব্যবহার নানারকম ভাবে করা হয়ে থাকে।পান সঠিকভাবে খাওয়া হলে, নি:শ্বাসের দুর্গন্ধ রোধ করে, পেটে কৃমি প্রতিরোধ করে, খিদে বাড়ানোর পাশাপাশি খাবার হজম করে এবং মাড়িকে শক্তিশালী রাখে।একটি পান পাতায় ৮৫.৪% আর্দ্রতা, ৩.১% প্রোটিন, ০.৮% চর্বি, ২.৩% খনিজ, ২.৩% ফাইবার এবং ৬.১% কার্বোহাইড্রেট থাকে। এছাড়াও এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, ক্যারোটিন, থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, নিয়াসিন এবং ভিটামিন-সি। পান অনেক রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে।

 

উল্লেখ্য, পান পাতার উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন।  অমিতাভ বচ্চনের সেই বিখ্যাত গান টি ” খাইকে পান বানারসি ওয়ালা  পান কে নিয়ে যেমন গান ও রয়েছে ঠিক তেমনি পানের উপকারিতাও প্রচুর রয়েছে।পান খাওয়ার নেশা প্রচুর ব্যক্তিদের আছে। আমাদের দেশে পানের ব্যবহার নানারকম ভাবে করা হয়ে থাকে।পান সঠিকভাবে খাওয়া হলে, নি:শ্বাসের দুর্গন্ধ রোধ করে, পেটে কৃমি প্রতিরোধ করে ( drinking ), খিদে বাড়ানোর পাশাপাশি খাবার হজম করে এবং মাড়িকে শক্তিশালী রাখে।

 

একটি পান পাতায় ৮৫.৪% আর্দ্রতা, ৩.১% প্রোটিন, ০.৮% চর্বি, ২.৩% খনিজ, ২.৩% ফাইবার এবং ৬.১% কার্বোহাইড্রেট থাকে। এছাড়াও এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, ক্যারোটিন, থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, নিয়াসিন এবং ভিটামিন-সি। পান অনেক রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে।