সাত সকালে প্রবল শব্দে কেঁপে উঠল রায়পুরের রেলস্টেশন, কেন?

প্রবল

সাত সকালে প্রবল শব্দে কেঁপে উঠল রায়পুরের রেলস্টেশন, কেন? ছত্তিশগড়ের রাজধানী রায়পুরে সিআরপিএফ জওয়ানদের ট্রেনে বিস্ফোরণ। শনিবার সকালের এই ঘটনায় আহত কমপক্ষে ছয় জওয়ান। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। জানা গিয়েছে, এদিন সকাল সাড়ে ছটা নাগাদ আচমকা প্রবল শব্দে কেঁপে উঠল রায়পুর স্টেশন।

 

আচমকা বিস্ফোরণে ৬ সিআরপিএফ জাওয়ান গুরুতর জখম হল। যাঁরা কিছুক্ষণ আগেই হইহই করে জম্মু-কাশ্মীরগামী ট্রেনে ওঠার তোড়জোর করছিল। সিআরপিএফের ২১১ ব্যাটেলিয়নে জওয়ানরা জম্মু-কাশ্মীরে যাচ্ছিলেন বিশেষ ট্রেনে। আচমকা বিস্ফোরণ কিসের, তা বুঝতেই কেটে গেল কয়েক মুহূর্ত। সম্বিৎ ফিরতেই স্টেশনে পড়ে রয়েছে ইতস্তত সিআরপিএফ জওয়ানরা।

 

কাছে গিয়ে দেখা গেল তার মধ্যে কয়েকজন রক্তাক্ত হয়ে পড়ে রয়েছেন। তড়িঘড়ি তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে কয়েকজনের আঘাত তেমন গুরুতর না হলেও বাকিরা ভাল রকম আঘাত পেয়েছন। জানা গিয়েছে, সিআরপিএফের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এবং অফিসাররা রায়পুরে হাসপাতালে জখম ওই জওয়ানদের দেখতে যান। বিস্ফোরকভর্তি এই বাক্স নিয়ে আরও সতর্কভাবে চলাফেরা করা উচিত ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি, এর পিছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

 

আর ও  পড়ুন    হাসিনার হুঁশিয়ারি সত্বেও বাংলাদেশে ইসকন মন্দিরে লুঠপাট, মৃত এক

 

যেখানে ডামি কার্টিজ বক্সে হ্যান্ড গ্রেনেড রাখা ছিল। এইগুলি ওই সিআরপিএফ জওয়ানরাই সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। ডিটোনেটর ভর্তি এই বাক্সটি দুর্ঘটনাবশত কোনও ভাবে পড়ে যায়। যখন সিআরপিএফ জওয়ানরা রেলস্টেশনে বাক্সটি নিয়ে যাচ্ছিলেন, তখনই এই আচমকা এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। সিআরপিএফ, পুলিশ এবং স্টেশন সূত্রের খবর, বাক্সটি পড়তেই আওয়াজ করে ফেটে যায় তিনজন। গুরুতর জখম হন এবং তাদের তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। তার মধ্যে দু’জনকে চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

 

উল্লেখ্য  এদিন সকাল সাড়ে ছটা নাগাদ রায়পুর রেল ওয়ে স্টেশন-এর ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকা জওয়ানদের ট্রেনটি থেকে আচমকা বিস্ফোরণের আওয়াজ মেলে। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। ট্রেনটিতে শুধু জওয়ানেরাই ছিলেন। সিআরপিএফ সূত্রে খবর, জিনিসপত্র রাখতে গিয়ে কাতুর্জ ভর্তি বক্স মেঝেয় পড়ে ফেটে গিয়ে বিস্ফোরণটি ঘটে। রায়পুর রেলওয়ে PIO শিব প্রসাদ বিস্ফোরণের খবরটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ট্রেন জিনিসপত্র তোলার সময় বাথরুমের কাছে রাখা ডিটোনেটরের বক্সে বিস্ফোরণ ঘটে।