বাইরের খাবার খেতে ভালবাসেন? জানেন কিডনির কতটা ক্ষতি করছেন?

0
15

বর্তমানের জীবনযাপনে ইয়ং জেনারেশন থেকে সকলেই বাড়ির খাবার খাওয়ার থেকে বাইরের খাবার খেতেই বেশি পছন্দ করেন। আর বাড়িতে খেলেও যদি পাতে নুন খাওয়ার অভ্যাস থাকে তাহলেতো হয়েই গেল।কিডনি খারাপের দিকে তাহলে আপনি ধীরে ধীরে এগোচ্ছেন। একাধিক বিশেষজ্ঞের মতে কিভাবে আপনি কিডনি সুস্থ রাখবেন জেনে নিন….

১) বাইরের খাওয়া এড়ান :
টিন ভর্তি প্রসেসড ফুড বা ডাঙ্ক ফুড শুধু ওবেসিটি বাড়ায় না, কিডনিরও ক্ষতি করে। তাই চেষ্টা করুন বাড়িতে রান্না করা খাবার খেতে। এতে খাবার সহজে হজম হবে। ভালো থাকবে কিডনিও।

২)জল খান: জল খাওয়া মানেই সুস্থ কিডনি। যত জল পান করবেন তত শরীরের বিষ মূত্রের আকারে বেরিয়ে যাবে। এতে শরীর ও কিডনি দুটিই ভালো থাকবে। চট করে কোনো সংক্রমণ কিডনিকে আক্রান্ত করতে পারবে না। শুধু জল পান করতে ভালো না লাগলে ডাবের জল বা লেবু-চিনির শরবতও খেতে পারেন। এতেও একই ফল মিলবে।

৩) সবজি, ফল ডায়েটে রাখুন:বাঁধাকপি, ফুলকপি, ব্লু-বেরি, ক্যআনবেরি, পেঁয়াজ, রসুন, মুলো, আনারস, আঙুর, বেল পেপারে সোডিয়াম কম থাকে। আর সোডিয়াম কম যুক্ত ফল, সবজি কিডনির পক্ষে ভালো। তাই তালিকায় এই ফল, সবজি বেশি করে রাখুন।

৪)সোডা ড্রিঙ্ক থেকে দূরে থাকুন : কার্বোনেটেড ড্রিঙ্ক খেতে খুব ভালো লাগলেও শরীর পক্ষে ভীষণ ক্ষতিকর।প্রথমত, এতে আছে প্রচুর চিনি। যা রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায়। একইসঙ্গে কিডনির পক্ষেও ক্ষতিকর। তাই ইনস্ট্যান্ট এনার্জি পেতে লেবু-চিনির শরবত বা ডাবের জল তালিকায় রাখুন। এতে কিডনি ভালো থাকবে। আপনিও সব সময়েই চাঙা।

৫)নুন খাওয়া কমান:
প্লেট কাঁচা নুন খাওয়া মানেই কিডনির বারোটা বাজা। নুনের মধ্যে থাকা সোডিয়াম কিডনি নষ্ট করতে দেয়। তাই পাতে আলগা নুন খাওয়া পারলে বন্ধ করুন। না পারলে সল্ট শেকারে নুন রাখুন। তাতে প্লেটে অল্প নুন পড়বে।

এবং অবশ্যই যেকোনো শারীরিক সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন। সুস্থ থাকুন। ভালো থাকুন।