বিজেপির সাংসদ পদ থেকে অবশেষে  ইস্তফা দিলেন বাবুল সুপ্রিয়

দিলেন

বিজেপির সাংসদ পদ থেকে অবশেষে  ইস্তফা দিলেন বাবুল সুপ্রিয়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ লোকসভার স্পিকারের বাড়িতে যান  বাবুল। সেখানেই আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করেন তিনি। ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন স্পিকারও। ইস্তফাপত্রের প্রতিলিপি টুইটও করেছেন বাবুল। এড়োপোড়  স্পিকারের বাসভবন থেকে বেরিয়ে বাবুল বলেন, ‘‌আমি আর এখন বিজেপির কেউ নই। তাই সাংসদ পদ আঁকড়ে ধরে রাখার অর্থ নেই। আমি পদত্যাগ করলাম।’‌

 

উল্লেখ্য, সোমবারই বাবুল জানান, মঙ্গলবার ওম বিড়লা তাঁকে সময় দিয়েছেন। সেই মতোই আজ লোকসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি।  জুলাইয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্ব থেকে তাঁকে সরানো হয়। এরপরেই বিজেপি ছাড়ার কথা ঘোষণা করেন।

 

সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে হঠাৎই তৃণমূলে যোগ দেন তিনি। এরপরেই তিনি জানান, বিজেপির টিকিটে যেহেতু তিনি জিতেছেন তৃণমূলে যোগের পর সেই কারণে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন তিনি। কিন্তু স্পিকারের কাছে একাধিক বার আবেদন জানান। কিন্তু নানা কারণে সেই সাক্ষাত্‍ হয়ে ওঠেনি। যা নিয়ে নানা জল্পনাও ছড়ায়।

 

আর ও পড়ুন    ভূত কি? বাস্তবে ভূত আছে কি? জানুন বিস্তারিত

 

অবশেষে আজ সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি। এবার প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে তৃণমূল কীভাবে কাজে লাগায় এখন সেটাই দেখার।

 

উল্লেখ্য, সাংসদ পদ থেকে অবশেষে  ইস্তফা দিলেন বাবুল সুপ্রিয়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ লোকসভার স্পিকারের বাড়িতে যান  বাবুল। সেখানেই আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করেন তিনি। ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন স্পিকারও। ইস্তফাপত্রের প্রতিলিপি টুইটও করেছেন বাবুল। এড়োপোড়  স্পিকারের বাসভবন থেকে বেরিয়ে বাবুল বলেন, ‘‌আমি আর এখন বিজেপির কেউ নই। তাই সাংসদ পদ আঁকড়ে ধরে রাখার অর্থ নেই। আমি পদত্যাগ করলাম।’‌সোমবারই বাবুল জানান, মঙ্গলবার ওম বিড়লা তাঁকে সময় দিয়েছেন। সেই মতোই আজ লোকসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি।

 

জুলাইয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্ব থেকে তাঁকে সরানো হয়। এরপরেই বিজেপি ছাড়ার কথা ঘোষণা করেন। সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে হঠাৎই তৃণমূলে যোগ দেন তিনি। এরপরেই তিনি জানান, বিজেপির টিকিটে যেহেতু তিনি জিতেছেন তৃণমূলে যোগের পর সেই কারণে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন তিনি। কিন্তু স্পিকারের কাছে একাধিক বার আবেদন জানান। কিন্তু নানা কারণে সেই সাক্ষাত্‍ হয়ে ওঠেনি। যা নিয়ে নানা জল্পনাও ছড়ায়।