বুধবার ১৪ জুলাই থেকে শুরু হলো ” বনমহোৎসব ” সপ্তাহ পালন কর্মসূচি

উত্তর দিনাজপুর:- ” প্রাকৃতিক দুর্যোগে প্রকৃতি-ই রক্ষক ” এই স্লোগানকে সামনে রেখে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরনায় সারা রাজ্যের সাথে সাথে উত্তর দিনাজপুর জেলাতেও বুধবার ১৪ জুলাই থেকে শুরু হলো ” বনমহোৎসব ” সপ্তাহ পালন কর্মসূচি। সচেতনতামূলক সুদৃশ্য টাবলো উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে রায়গঞ্জ কুলিক অরন্যের কুলিক পক্ষীনিবাসে এই বনমহোৎসবের শুভ সূচনা করলেন রায়গঞ্জ বন বিভাগের বিভাগীয় আধিকারিক সিদ্ধার্থ।

Screenshot 20210714 192408 WhatsApp বুধবার ১৪ জুলাই থেকে শুরু হলো  বনমহোৎসব  সপ্তাহ পালন কর্মসূচি

উপস্থিত ছিলেন জেলার অতিরিক্ত বন আধিকারিক সিতাংশু কুমার গুপ্ত, রায়গঞ্জ ফরেস্ট রেঞ্জার প্রদীপ কর চৌধুরী সহ বন দপ্তরের আধিকারিকেরা। করোনা আবহে সচেতনতার কথা মাথায় রেখে সচেতনতামূলক সুদৃশ্য বন দপ্তরের এই ট্যাবলো রায়গঞ্জ শহর সহ জেলার সর্বত্র প্রচার করবে। এর পাশাপাশি বুধবার থেকে শুরু হওয়া সপ্তাহকাল ব্যাপী এই বনমহোৎসবে প্রায় দুলক্ষ চারাগাছ বিতরণের কর্মসূচী গ্রহন করেছে উত্তর দিনাজপুর জেলা বন দপ্তর। জেলা বন বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় আধিকারিক সিতাংশু কুমার গুপ্ত জানিয়েছেন, ১৪ জুলাই থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত সাতদিন ব্যাপী বনমহোৎসব কর্মসূচীতে সচেতনতামূলক ট্যাবলো উত্তর ও দক্ষিন দুই দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরবে এবং এই ট্যাবলো থেকে প্রতিটি মানুষকে ৫ টি করে চারাগাছ বিতরণ করা হবে। করোনা পরিস্থিতি পরিবেশে অক্সিজেনের মাত্রা বৃদ্ধি করতে বৃক্ষরোপণই একমাত্র উপায় এই বার্তাটাই মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সপ্তাহকাল ব্যাপী বনমহোৎসব কর্মসূচীতে রায়গঞ্জ বন বিভাগের অধীনে দুই দিনাজপুর জেলায় মোট ১ লক্ষ ৯০ হাজার চারাগাছ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য্য করা হয়েছে।