ব্যবহৃত রুমালের থেকেও ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস, দাবি চিকিৎসকদের

4 8 ব্যবহৃত রুমালের থেকেও ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস, দাবি চিকিৎসকদের

৭ ফেব্রুয়ারি, বাইরে বেরোনোর আগে রুমালটা নিতে কেউই ভোলেনা।কারণ রুমাল আমাদের বহুসময় প্রয়োজনে পরে।কিন্তু এবার চিকিৎসকরা সামনে আনল এক নতুন তথ্য। রুমালের মধ্যেও নাকি লুকিয়ে রয়েছে করোনা ভাইরাস! কিন্তু একখন্ড রুমাল থেকে কী করে ছড়াতে পারে এই ভাইরাস, এই প্রশ্নই উঠে আসে। শীতের শেষের সময়টা প্রত্যেক ঘরে ঘরেই লেগে থাকে সর্দি-কাশি। কোন ঠান্ডাটা ভাইরাস আর কোনটা সাধারণ, সেটা পরীক্ষা না করলে বোঝা যাবে না। আপাত দৃষ্টিতে এটাই মনে করা হচ্ছে করোনা ভাইরাস ছোঁয়াচে।

চিকিৎসকদের দাবি, নাক পরিষ্কার করার জন্য যে রুমালের ব্যবহার করা হচ্ছে বা হয়, তা এবার বন্ধ করা উচিত। ঘনঘন সর্দি-কাশির ফলে উঠে আসে কফ আর সঙ্গেই জ্বর। যে দু’টোই করোনা ভাইরাসের লক্ষন। সর্দির পর অনেকেই রুমালে নাক ঝেড়ে রেখে দেয় যেখানে-সেখানে। সেই রুমাল যদি অন্য করার সংস্পর্শে আসে, তাহলে সেখান থেকেই ছড়াতে পারে এই রোগ। রুমালের মধ্যে যে জীবানু থাকে,সেই জীবাণু থেকেই ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস। তাই ডাক্তারদের পরামর্শ,রুমালের থেকে ন্যাপকিন বা টিস্যু পেপার ব্যবহার করা বেশি নিরাপদ। কারণ, এগুলি ব্যবহার করার পর ফেলে দেওয়া হয়, তাই এটি বেশি নিরাপদ।এক খন্ড রুমাল থেকেও ছড়াতে পারে করণের মতো মারাত্মক ভাইরাস।সাথে হ্যান্ডশেক-কেও বিপজ্জনক মনে করছেন চিকিৎসকেরা।হাত যতটা সম্ভব পরিষ্কার রাখা প্রয়োজন, তবেই এড়ানো যাবে এই ভাইরাস।