রাজ্যে ফের বৃষ্টির ভ্রুকুটি, কেমন থাকবে আবহাওয়া? জানুন

ভ্রুকুটি,

রাজ্যে ফের বৃষ্টির ভ্রুকুটি, কেমন থাকবে আবহাওয়া? জানুন ।  নির্ধারিত  সময়ের কিছুটা  আগেই রাজ্যে চলে এসেছিল শীত। তবে শুরুর আগেই বাধা পড়লো  শীতের আমেজে। কলকাতায় পাঁচ দিনে পাঁচ ডিগ্রি তাপমাত্রা বাড়ল। ফলে অস্বস্তিতে পড়েছে জনসাধারণ। শনিবার ভোর থেকেই আকাশের মুখ ভার। হালকা বৃষ্টিতে ভিজল কলকাতা।  বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। যার জেরেই এই বৃষ্টি। একই সঙ্গে রয়েছে পুবালি হাওয়া।

 

কলকাতায় রাতের তাপমাত্রা বেড়েছে ৫ ডিগ্রি। দিনের তাপমাত্রাও গত ৪৮ ঘণ্টায় প্রায় ১ ডিগ্রি উপরে রয়েছে। শনিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩০.৮ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকে তুলনায় ১ ডিগ্রি বেশি। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৩.৩ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৩ ডিগ্রি বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টির পরিমাণ ০.৫ মিলিমিটার।

 

আর ও  পড়ুন    কংগ্রেসের জাতীয়তাবাদী আদর্শকে ঢেকে দিয়েছে বিজেপি, বললেন রাহুল গান্ধী

 

এদিকে, পুবালি হাওয়া এবং নিম্নচাপের ফলে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণাবর্ত। যার জেরে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে তামিলনাডু, অন্ধ্রপ্রদেশ সহ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। একই সঙ্গে সেই আঁচ পশ্চিমবঙ্গেও পড়ার কথা। দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে সারাদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

কলকাতার দক্ষিন অংশে ইতিমধ্যেই বৃষ্টি হচ্ছে। তবে শহরের উত্তরাংশে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। শীতের ইনিংস শুরুর আগেই শেষের মুখে। তাই আগামী কয়েকদিন আদ্র এবং ভ্যাপসা আবহাওয়া থাকতে চলেছে শহরে।

 

উল্লেখ্য, রাজ্যে ফের বৃষ্টির ভ্রুকুটি, কেমন থাকবে আবহাওয়া? জানুন ।  নির্ধারিত  সময়ের কিছুটা  আগেই রাজ্যে চলে এসেছিল শীত। তবে শুরুর আগেই বাধা পড়লো  শীতের আমেজে। কলকাতায় পাঁচ দিনে পাঁচ ডিগ্রি তাপমাত্রা বাড়ল। ফলে অস্বস্তিতে পড়েছে জনসাধারণ। শনিবার ভোর থেকেই আকাশের মুখ ভার। হালকা বৃষ্টিতে ভিজল কলকাতা।  বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। যার জেরেই এই বৃষ্টি। একই সঙ্গে রয়েছে পুবালি হাওয়া।

 

কলকাতায় রাতের তাপমাত্রা বেড়েছে ৫ ডিগ্রি। দিনের তাপমাত্রাও গত ৪৮ ঘণ্টায় প্রায় ১ ডিগ্রি উপরে রয়েছে। শনিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩০.৮ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকে তুলনায় ১ ডিগ্রি বেশি। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৩.৩ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৩ ডিগ্রি বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টির পরিমাণ ০.৫ মিলিমিটার। এদিকে, পুবালি হাওয়া এবং নিম্নচাপের ফলে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণাবর্ত। যার জেরে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে তামিলনাডু, অন্ধ্রপ্রদেশ সহ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। একই সঙ্গে সেই আঁচ পশ্চিমবঙ্গেও পড়ার কথা। দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে সারাদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।