‘মন্ত্রীর দোষে ভোটে হেরেছি’, অনুব্রত মন্ডলের সামনে অভিযোগ তৃণমূল বুথ সভাপতির

0
1

বীরভূম: মহঃবাজারে রবিবার বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের একটি কর্মীসভার আয়োজন করা হয়েছিল। যে কর্মিসভায় মহঃবাজার ব্লকের ২৪১ নং বুথের বুথ সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের সামনের সরাসরি অভিযোগ করেন, তাদের এলাকায় ভোটে হারার কারণে রয়েছেন মন্ত্রী। আর যে এলাকার ওই বুথ সভাপতি সেই এলাকা রামপুরহাট বিধানসভার অন্তর্গত। যে এলাকার বিধায়ক তথা রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়।

অনুব্রত মণ্ডল এদিন ওই বুথ সভাপতিকে জিজ্ঞাসা করেন, ‘কত ভোটে হেরে আছো?’

ওই বুথ সভাপতি উত্তর দেন, ‘১৮১ ভোটে’।

অনুব্রত মণ্ডল সাথে সাথে জিজ্ঞাসা করেন, ‘কেন হারলে ভাই?’

আর এই প্রশ্ন শুনে সঙ্গে সঙ্গে ওই বুথ সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে উত্তরে জানান, ‘আমাদের মন্ত্রীর দোষে।’

আর এই উত্তর শুনে সভায় উপস্থিত তৃণমূল নেতারা এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে এই বুথ সভাপতি বলেন, ‘সত্যি কথাটা বলতে দিন’। আর এর পরেই তাকে বলতে দেওয়া হয়।

বুথ সভাপতি : আমাদের ওখানে যে একজন আছে মন্ত্রীর ছত্রছায়ায় সে দিনে তৃণমূল, রাতে বিজেপি। সে তৃণমূলের ভোট কেটে বিজেপিকে দিয়েছে। তার জন্য আমার হার। পঞ্চায়েত ভোটে পাঁচটা ভোটে এগিয়ে ছিলাম, যেখানে সিপিআইএমের আধিপত্য ছিল। কিন্তু তৃণমূলের ভোট পেয়ে ছিলাম। সেটা না দেখে আমাদের বিভিন্নভাবে হ্যারেস করেছে। কোন ব্লক নেতৃত্ব কোন সহযোগিতা করেন নাই। ওইটা যতদিন না ঠিক করতে পারবেন তত দিন আপনারা যতই বলুন কোন মতেই রিকভারি করতে পারবেন না। আমি এখানে বলে গেলাম আজকে।

মূলত ওই তৃণমূল কর্মীদের অভিযোগ এলাকার আরেক তৃণমূল নেতা রাকেশের বিরুদ্ধে। আর এই অভিযোগ শুনে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বিচক্ষণতার সাথে ওই তৃণমূল কর্মীকে শান্ত করেন। পাশাপাশি অনুব্রত মণ্ডল ব্লক নেতৃত্বকে নির্দেশ দেন রাকেশকে অঞ্চলের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে ব্লকের দায়িত্বে আনার জন্য।