একদিনে নতুন করোনা শনাক্তের বিশ্ব রেকর্ড গড়ল যুক্তরাষ্ট্র

বেড়ে

একদিনে নতুন করোনা শনাক্তের বিশ্ব রেকর্ড গড়ল যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সোমবার করোনাভাইরাসে অন্তত ১১ লাখ ৩০ হাজার নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এটি একদিনে নতুন শনাক্তের বিশ্ব রেকর্ড। এর আগে ৩ জানুয়ারিতে শনাক্তের সংখ্যা ছিল ১০ লাখ ৩০ হাজার।  বিশ্বের কোনো দেশেই দ্রুত বিস্তার লাভ করা করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তার কমার লক্ষণ দেখা যায়নি, বলছে রয়টার্স।

 

দেশটিতে সাপ্তাহিক গড় শনাক্ত প্রতি দুই সপ্তাহে তিনগুণ বেড়েছে। এ ছাড়া অনেক অঙ্গরাজ্য সাপ্তাহিক প্রতিবেদন না দেওয়ায় প্রতি সোমবার প্রচুর পরিমাণে শনাক্ত দেখা যায়। এখন পর্যন্ত সব প্রদেশ সোমবার প্রতিবেদন জমা দেয়নি। জমা হলে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। গত বছরের জানুয়ারিতে দেশটির জনগণ নতুন শনাক্তের রেকর্ড দেখেছিল। সে সময় প্রচুর সংখ্যক রোগী হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ওই সময়টিতে তিন সপ্তাহে নতুন শনাক্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছিল।

 

দেশটিতে ১৩ লাখ ৫৫ হাজারের বেশি রোগী কোভিডে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আছেন যা গত বছরের জানুয়ারির রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে। গত বছর জানুয়ারিতে ১ লাখ ৩২ হাজার রোগী ভর্তি হয়েছিলেন। যদিও ওমিক্রন কম গুরুতর, তারপরও হাসপাতালের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে পারে বলে সতর্ক করেছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। ইতোমধ্যে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ওমিক্রনের প্রভাব দেখা গেছে।

 

আর ও পড়ুন    লতা মঙ্গেশকর করোনা আক্রান্ত, হাসপাতালের আইসিইউতে তাঁর চিকিৎসা চলছে

 

ওমিক্রন হাসপাতালের কর্মী দিয়ে সেবা ব্যাহত করতে পারে। সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় কর্মী, শিক্ষক ও বাস চালকের অনুপস্থিতিতে স্কুলের কার্যক্রম ব্যহত হয়েছে। শিকাগো চতুর্থ দিনের জন্য ক্লাস বাতিল করেছে। কারণ, সেখানের প্রশাসন এবং শিক্ষকরা বর্ধিত সংক্রমণ মোকাবেলায় কী করতে হবে, সে বিষয়ে একমত হতে ব্যর্থ হয়েছেন। নিউইয়র্কে বিপুল সংখ্যক শ্রমিক অসুস্থ হওয়ায় তিনটি সাবওয়ে লাইনে পরিষেবা স্থগিত করা হয়েছে। কর্মীদের অফিসে ফেরার জন্য কোম্পানির পরিকল্পনাও ব্যাহত হয়েছে। সেখানে প্রতিদিন গড়ে ১ হাজার ৭০০ মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে।

 

উল্লেখ্য, একদিনে নতুন করোনা শনাক্তের বিশ্ব রেকর্ড গড়ল যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সোমবার করোনাভাইরাসে অন্তত ১১ লাখ ৩০ হাজার নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এটি একদিনে নতুন শনাক্তের বিশ্ব রেকর্ড। এর আগে ৩ জানুয়ারিতে শনাক্তের সংখ্যা ছিল ১০ লাখ ৩০ হাজার।  বিশ্বের কোনো দেশেই দ্রুত বিস্তার লাভ করা করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তার কমার লক্ষণ দেখা যায়নি, বলছে রয়টার্স। দেশটিতে সাপ্তাহিক গড় শনাক্ত প্রতি দুই সপ্তাহে তিনগুণ বেড়েছে।

 

এ ছাড়া অনেক অঙ্গরাজ্য সাপ্তাহিক প্রতিবেদন না দেওয়ায় প্রতি সোমবার প্রচুর পরিমাণে শনাক্ত দেখা যায়। এখন পর্যন্ত সব প্রদেশ সোমবার প্রতিবেদন জমা দেয়নি। জমা হলে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। গত বছরের জানুয়ারিতে দেশটির জনগণ নতুন শনাক্তের রেকর্ড দেখেছিল। সে সময় প্রচুর সংখ্যক রোগী হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ওই সময়টিতে তিন সপ্তাহে নতুন শনাক্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছিল।