দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত হলেন রাজ শুভশ্রী

শুভশ্রী

দ্বিতীয়বার করোনা আক্রান্ত হলেন রাজ শুভশ্রী । করোনা আক্রান্ত তৃণমূল বিধায়ক তথা পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। আক্রান্ত হয়েছেন শুভশ্রীও। দ্বিতীয়বারের জন্যে ফের দুজনেই করোনা আক্রান্ত হলেন। মঙ্গলবার রাতে এমনটাই টুইট করে জানিয়েছেন রাজ এবং শুভশ্রী দুজনেই। আপাতত দুজনেই বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। মৃদু উপসর্গ থাকায় বাড়িতেই নিভৃতবাসে রয়েছেন তারকা-দম্পতি। চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই চলছে তাঁদের চিকিৎসা।

 

২০২০ সালে প্রথমবার করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন রাজ চক্রবর্তী। অতিমারির প্রথম বর্ষে আগস্ট মাসে কোভিড পজিটিভ হওয়ার খবর টুইট করে জানিয়েছিলেন রাজ। এরপর একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারের কাজে রাজ যখন ব্যস্ত, তখন এপ্রিল মাসে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হন শুভশ্রী। যদিও তাঁর একরত্তি সন্তান যুবানকে কেয়ারটেকারের কাছে রেখে আইসোলেশনে ছিলেন শুভশ্রী।

 

কিছুদিন আগেই চিকেন পক্স হয়েছিল রাজের। সদ্য তার থেকে সেরে উঠেছেন তিনি। অসুস্থতা দূর হতেই শারীরিক ক্লান্তি কাটিয়ে কাজে ফিরেছিলেন বিধায়ক-পরিচালক। এর মাঝেই ফের তিনি করোনায় আক্রান্ত হলেন। করোনার জেরেই দিন তিনেক পরেই অনুষ্ঠিত হতে চলা ২৭তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে হাজির থাকতে পারবেন না উৎসবের চেয়ারপার্সন রাজ।

 

আর ও পড়ুন    হাড় কাঁপানো শীতের মাঝেই ঘন কুয়াশার সর্তকতা জারি হলো রাজ্যে

 

ইতিমধ্যে ডাক্তারদের পরামর্শ নিয়েছেন তাঁরা দুজনেই। তবে গত কয়েকদিনে তাঁদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাঁদের দ্রুত করোনা পরীক্ষা এবং আইসোলেশনে থাকার কথা জানিয়েছেন। অন্যদিকে আক্রান্ত হওয়ার পরেই রাজ এবং শুভশ্রী দুজনেই তাঁদের অনুগামীদের কোভিড বিধি মেনে চলার বার্তা দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, মাস্ক সবাইকে পড়তে বলা হয়েছে। তবে রাজ এবং শুভশ্রী করোনা আক্রান্ত হলেও সুস্থ আছেন তাঁদের সন্তান এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও। এমনটাই সুত্রের খবর।

 

তবে এই সংক্রমণের খবর সামনে আসার পর থেকেই উদ্বেগে তাঁদের অসংখ্য অনুগামী। দ্রুত আরোগ্য কামনা অনুগামীদের। তবে প্রথম নয়, গত বছর বিধানসভা ভোটের আগে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন টলিউডের এই তারকা দম্পতি। যদিও রাজ আগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। সেই সময়ে শুভশ্রীর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কিন্তু এরপর ভোটের সময়ে করোনাতে আক্রান্ত হন শুভশ্রী। সঙ্গে সঙ্গে নিজেকে আইসোলেশনে নিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। তবে রাজের জন্যে উদ্বেগ ছড়ায়। কারন সেই সময়ে ভোটের ময়দানে ছিলেন তিনি। কিন্তু হইনি। তবে থার্ড ওয়েভে একসঙ্গে তাঁরা দুজনেই আক্রান্ত হলেন।