শুষ্ক চুলের সমস্যায় নাজেহাল? চুলে লাগান মেয়োনিজ

0
15

নিউজ ডেস্ক, ৯ জুন ২০২১ :
মুখের সৌন্দর্য নির্ভর করে সুন্দর চুলের উপর। আর সেই চুল যদি অত্যাধিক শুকিয়ে যায় বা পরে যেতে থাকে তাহলেই চলে যেতে থাকে সৌন্দর্য। তাই শুষ্ক চুলের যত্ন নিতে এবার থেকে চুলে লাগান মেয়োনিজ। মেয়োনিজে রয়েছে অ্যামিনো অ্যাসিড। যা এল-সিস্টাইন নামে পরিচিত। এর ফলে চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি মেয়োনিজে ডিম থাকে, চুলের গোড়ায় পুষ্টি জোগানের জন্য এটি বেশ উপকারী।
ফ্যাটি অ্যাসিড ও অ্যামিনো অ্যাসিড থাকায় চুলকে তাজা ও সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। ডিপ কন্জিশনার হিসেবেও বেশ কার্যকরী।

বাজারচলতি কন্ডিশনার ব্যবহার না করে শ্যাম্পুর পর মেয়োনিজ ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও , চুলে খুসকির সমস্যা, চুলকানির সমস্যা থাকলে মেয়োনিজ একটি টনিকের মতো কাজ করে। চুলের ত্বকের মধ্যে থাকা ব্যাকটেরিয়াগুলিকে নির্মূল করে খুসকি হঠাতে সাহায্য করে।চুলকে হাইড্রেট করতে মেয়োনিজের বিকল্প নেই । তেল, ক্যানোলা ও সোয়াবিন তেল, ডিমের কুসুম, ভিনিগার ও লেবুর রস রয়েছে মেয়োনিজে। চুলের ত্বকে ও চুলকে সতেজ রাখতে মেয়োনিজ খুবই ভাল উপকরণ।ক্ষতিগ্রস্ত চুলকে কোমল, স্মুথ, মসৃণ করতে মেয়োনিজ ব্যবহার করতে পারেন। প্রোটিন, ভিটামিন ও ফ্যাটি অ্যাসিডের কারণে চুলে উজ্জ্বলতাও বাড়ে। চুলের পুরোপুরি দেখভালের জন্য মেয়োনিজ যে পারফেক্ট, তা বলাই বাহুল্য। এবার জেনে নিন কিভাবে চুলে লাগাবেন মেয়োনিজ।


প্রথমে গোটা চুলকে জলে ভিজিয়ে নিন। এরপর চুলের ভলিউম দেখে মেয়োনিজ নিন। গোটা চুলে কন্ডিশনারের মতো ব্যবহার করুন। চুলের স্ক্যাল্পেও মেয়োনিজ ব্যবহার করলে উপকার মিলবে দ্রুত। ৪-৫ মিনিট ধরে ভাল করে মাসাজ করুন। এবার কাঠের একটি চিরুনি বা ব্রাশ দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন যাতে মেয়োনিজ চুলের সবদিকেই ছড়িয়ে পড়ে।শাওয়ার ক্যাপ পরে ২০ মিনিট ওয়েট করুন। এবার পছন্দের শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একবার এইভাবে ব্যবহার করলে দারুণ সুফল পাবেন। তবে অবশই যেকোনো শারীরিক সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। সুস্থ থাকুন , ভালো থাকুন।