যৌন সংসর্গে অনীহা দূর করবে এই খাবারগুলি

সংসর্গে

যৌন সংসর্গে অনীহা দূর করবে এই খাবারগুলি । কাজের অসম্ভব চাপ। মানসিক অবসাদ। দিনের পর দিন ঘরে বসে মন মেজাজ খারাপ। এসব কারণে কিন্তু ব্যহত হতে পারে আপনার যৌন জীবন। যৌন সংসর্গে অনীহা আসতে পারে। আবার উচ্ছৃঙ্খল জীবন যাপন করলেও কিন্তু তার প্রভাব পড়বে যৌন জীবনে। তাই সুষ্ঠুভাবে, সুস্থ হয়ে জীবন যাপন খুব দরকার। পাশাপাশি পুষ্টিকর, সুষম খাবার খাওয়াটাও কিন্তু জরুরি। তাহলে আপনার যৌন জীবনে গতি আসতে বাধ্য।কিছু খাবারদাবার রোজ ডায়েটে থাকলে কিন্তু কাঙ্খিত যৌন জীবন পেতে পারেন।

 

আখরোট:‌ নিয়মিত আখরোট খেলে পুরুষদের শুক্রাণুর গুণমান ভালো হয়। আকার, আকৃতি, গতি বৃদ্ধি পায়। আখরোট খেলে অনায়াসেই বাড়বে বংশবৃদ্ধির ক্ষমতা।

স্ট্রবেরি, রাস্‌পবেরি:‌ এই ফলের বীজে থাকে প্রচুর পরিমাণে জিঙ্ক। এই জিঙ্ক পুরুষ এবং মহিলা, উভয়েরই যৌন জীবনে গতি আনে। এই জিঙ্ক মহিলাদের শরীরকে যৌন সঙ্গমের জন্য প্রস্তুত করে। আর পুরুষদের ক্ষেত্রে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে জিঙ্ক। এই টেস্টোস্টেরন হরমোন শুক্রাণু তৈরিতে সাহায্য করে।

অ্যাভোকাডো:‌ এতে থাকে ফলিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন বি ৬। এই দুই সক্রিয় যৌন জীবনের জন্য জরুরি। ফলিক অ্যাসিড এনার্জি বাড়ায়। আর ভিটামিন বি ৬ হরমোনগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে।

তরমুজ:‌ নিয়মিত তরমুজ খেলে পুরুষদের লিঙ্গ–ঋজুতা (‌ইরেকশন)‌ বাড়ায়।

আমন্ড:‌ এতে থাকে আরজিনাইন, যা রক্ত চলাচল ভালো রাখে। রক্তবাহিকাগুলো শিথিল করে। ইরেকশনেও সাহায্য করে।

 

 

আর ও পড়ুন    এক ধাক্কায় অনেকটাই কমতে চলেছে পেট্রল-ডিজেলের দাম

 

 

চকোলেট:‌ ডার্ক চকোলেট সেরোটোনিন, এনডরফিন ক্ষরণ করে। এতে যৌন সঙ্গমের আগে মুড ভালো হয়ে যায়।

ডিম:‌ ডিমে থাকে অ্যামাইনো অ্যাসিড এল–আরজিনাইন। লিঙ্গ শিথিলতার সমস্যা দূর করে এটি।

পিচ:‌ এই ফলে প্রচুর ভিটামিন সি থাকে, যা শুক্রাণু সংখ্যা বাড়ায়। গুণমানও ভালো করে।

কফি:‌ এই পানীয় উদ্দীপক হিসেবে কাজ করে। যৌন সংসর্গের ইচ্ছা বাড়ায়।

কেশর:‌ বিছানায় নেতিয়ে পড়ছেন?‌ তাহলে রোজ সামান্য হলেও কেশর খেতে পারেন। এনার্জিও বাড়ায়।