মন্ত্রীর পাশে মুখ দেখানোর হুড়োহুড়ি! মন্ত্রীকে নিয়ে হুড়মুড়িয়ে ভাঙল মঞ্চ

হুড়মুড়িয়ে

মন্ত্রীর পাশে মুখ দেখানোর হুড়োহুড়ি! মন্ত্রীকে নিয়ে হুড়মুড়িয়ে ভাঙল মঞ্চ। ঘটনা পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপনে বিধানসভা এলাকার। শুক্রবার সন্ধ্যায় এক পথসভায় বিভিন্ন দল থেকে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূলে যোগদান কর্মসূচি ছিল। সেখানে রাজ্যের কৃষি বিপনন মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র উপস্থিত ছিলেন। অত্যন্ত উৎসাহের সঙ্গে দলের নেতা কর্মীরা এই কর্মসূচিতে যোগ দেন।

 

এরপর মঞ্চের উপর থেকেই সংবাদমাধ্যমের সামনে কথা বলছিলেন রাজ্যটির কৃষি বিপনন মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র। অন্যান্য নেতারাও তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরায় মুখ দেখানোর জন্য পেছন থেকে ঠেলাঠেলিও চলছিল পুরোদমে।

মন্ত্রী বলতে শুরু করেন, ৫০০, হাজার জনের যোগদানের কথা শুনেছেন। কিন্তু আপনারা দেখলেন সত্যি ১২ হাজারের মানুষ বিভিন্ন দল থেকে যোগ দিলেন। সিপিএম, বিজেপির নেতৃত্বের অনেকেই যোগ দিলেন। রেকর্ড সংখ্যক মানুষ যোগদান করলেন। একথা শেষ করতেই আচমকা হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল মঞ্চ। চারদিকে চিৎকার শুরু হয়ে যায়। মন্ত্রীর পাশে দাঁড়ানো এক ব্যক্তি ধরে ফেলেন তাঁকে।

 

আর ও পড়ুন     পৃথিবীতে গ্রহানুর আঘাত ঠেকাতে কি করলো নাসা? জানুন

 

এরপরই তুমুল চিৎকার চেঁচামেচি শুরু হয়ে যায়। কোনওরকমে মন্ত্রীকে ধরে নিরাপদে বাইরে আনা হয়। স্থানীয় সূত্রে খবর, মন্ত্রীর পাশে দাঁড়ানোর জন্য় প্রচুর মানুষ মঞ্চে উঠে পড়েছিলেন। তুমুল হুড়োহুড়ি হচ্ছিল। আর এই এত মানুষের ভার সহ্য করতে পারেনি মঞ্চ।

 

পরে বিপ্লব মিত্র বলেন, এত বড় একটা সভা হচ্ছিল। ১২ হাজারের বেশি মানুষ তৃণমূলে যোগ দিলেন। তার তো একটা চাপ থাকেই। সাংবাদিক বৈঠক সবে শুরু হয়েছিল। সেই সময়টাতেই মঞ্চটা ভেঙে যায়। তেমন একটা লাগেনি। সবাই সুস্থই আছেন।

 

উল্লেখ্য, মন্ত্রীর পাশে মুখ দেখানোর হুড়োহুড়ি! মন্ত্রীকে নিয়ে হুড়মুড়িয়ে ভাঙল মঞ্চ। ঘটনা পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপনে বিধানসভা এলাকার। শুক্রবার সন্ধ্যায় এক পথসভায় বিভিন্ন দল থেকে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূলে যোগদান কর্মসূচি ছিল। সেখানে রাজ্যের কৃষি বিপনন মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র উপস্থিত ছিলেন। অত্যন্ত উৎসাহের সঙ্গে দলের নেতা কর্মীরা এই কর্মসূচিতে যোগ দেন।এরপর মঞ্চের উপর থেকেই সংবাদমাধ্যমের সামনে কথা বলছিলেন রাজ্যটির কৃষি বিপনন মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র। অন্যান্য নেতারাও তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

 

সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরায় মুখ দেখানোর জন্য পেছন থেকে ঠেলাঠেলিও চলছিল পুরোদমে।মন্ত্রী বলতে শুরু করেন, ৫০০, হাজার জনের যোগদানের কথা শুনেছেন। কিন্তু আপনারা দেখলেন সত্যি ১২ হাজারের মানুষ বিভিন্ন দল থেকে যোগ দিলেন। সিপিএম, বিজেপির নেতৃত্বের অনেকেই যোগ দিলেন। রেকর্ড সংখ্যক মানুষ যোগদান করলেন। একথা শেষ করতেই আচমকা হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল মঞ্চ। চারদিকে চিৎকার শুরু হয়ে যায়। মন্ত্রীর পাশে দাঁড়ানো এক ব্যক্তি ধরে ফেলেন তাঁকে।