মায়ের বোকা শুনে আত্মহত্যা করল এক কিশোরী

0
5

নিজস্ব সংবাদদাতা, দক্ষিণ ২৪পরগণা,৩০ অক্টোবর,২০২০:দুর্গা পুজোতে বন্ধুদের সঙ্গে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে রাতে না ফেরায় কপালে জোটে মায়ের বকুনি। মায়ের বকুনি শুনে আত্মহত্যা করল এক কিশোরী। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা ভাঙড় এর কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স থানার ধর্মতলা পাচুরিয়া এলাকায়।

পরিবার সূত্রে খবর দুর্গাপূজার নবমীর দিন বন্ধুদের সঙ্গে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে ছিল বছর সতেরোর পায়েল মন্ডল। কিন্তু গভীর রাত হয়ে যাওয়ায় আর বাড়ি ফিরিনি। পরেরদিন বাড়ি ফিরলে পায়েলের মা তাকে প্রচণ্ড বোকা দেয় বলে খবর।

সেই ঘটনা পর বৃহস্পতিবার সকালে ও বকাঝকা করে কাজে বেড়িয়ে গিয়েছিল। তারপর দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকায় গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ঘটনার পর তার বোন পাপিয়া মন্ডল দেখতে পেয়ে প্রতিবেশীদের ডাকলে তারা এসে উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন…করোনা পজেটিভ অপরাজিতা আঢ্য তবুও ব্যস্ত লক্ষ্মী পুজো নিয়ে

অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করে জিরানগাছা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা মৃত বলে ঘোষণা করে। খবর পেয়ে কাশীপুর থানার পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে। আজ পায়েলের মৃতদেহ পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।