রিপোর্ট হাতে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে বালুরঘাটের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ( Chairaman )

Chairaman
1 324 রিপোর্ট হাতে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে বালুরঘাটের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ( Chairaman )
ছবি সংগ্রহে সাইন টিভি

 

সাংবাদিক বৈঠক করে তথ্য জানার অধিকারের রিপোর্ট হাতে নিয়ে নিজের বিরুদ্ধে উঠা দুর্নীতির অভিযোগের জবাবি সাফাই গাইলেন বালুরঘাট পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান( Chairaman )  রাজেন শীল৷ সোমবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট শহরের নিউ মার্কেট এলাকায় নতুন ১৮ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠক ডাকেন রাজেন শীল।

 

এদিন তিনি সাংবাদিক বৈঠকে তথ্য জানার অধিকারের রিপোর্ট পেশ করে দাবী করেন বিগত সময়ে তার বিরুদ্ধে উঠা বালুরঘাট পৌরসভার নিজস্ব ফান্ড তছরুপের অভিযোগ মিথ্যা এবং তার ব্যক্তিগত হোটেল গড়ার কথাও মিথ্যা। পাশাপাশি এদিন তিনি দাবী করেন ২০১৬-২০১৮ সাল অবধি বালুরঘাট পৌরসভায় তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত পৌরবোর্ড থাকাকালীন তিনি চেয়ারম্যান পদে অসীন থাকাকালীন পরবর্তী সময়ে তিনি বালুরঘাট পৌরসভার নিজস্ব ফান্ডে ৫ কোটিরও বেশী টাকা রেখে গেছেন।

 

আর ও পড়ুন    মঞ্চে ফিরছেন অরিজিত ( Arijit ) সিং

 

একইসাথে এদিন তিনি এও দাবী করেন তিনি চেয়ারম্যান ( Chairaman ) থাকাকালীন তিনি বালুরঘাট পৌরসভায় ২৯টি প্রোজেক্ট করেছেন। প্রায় ৩ বছর সময় বাদে নিজের বিরুদ্ধে বিগত সময়ে উঠা দুর্ণীতির অভিযোগ ঝেড়ে ফেলে দেওয়ার পাশাপাশি এদিন তিনি নাম না করে তৃণমূল কংগ্রেস দলেরই কারো দিকে ইঙ্গিত করে এবং তাকে কার্যত অভিযোগের কাঠগড়ায় তুলে রাজেন শীল মন্তব্য করেন তৃণমূল দলকে জড়িয়ে দিয়ে সুবিধাটা নিল আর দলকে আঘাত করল, বাংলার মা মমতা ব্যানার্জ্জী এই বিষয়টি দেখুক।

 

শুধু তাই নয় রাজেন শীল এদিন এও দাবী করেন তিনি বালুরঘাট শহরকে সুন্দর শহর হিসাবে সাজিয়ে তুলতে চেয়েছিলেন কিন্তু তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে। একইসঙ্গে বালুরঘাট পৌরসভার প্রশাসক বোর্ডের নিজের স্থান না পাওয়া বিষয়ে রাজেনের উক্তি ক্ষোভ নেই-দুঃখ আছে।

 

অপরদিকে বালুরঘাট পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান রাজেন শীল-এর এদিনের এই সাংবাদিক বৈঠক প্রসঙ্গে বালুরঘাট পৌরসভার বর্তমান প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান শেখর দাশগুপ্ত বলেন আই.টি.আই রিপোর্ট দেখেছি, আমি অসঙ্গতি পাইনি, অসঙ্গতিই যদি থাকত তাহলে বিরোধীরা বোর্ড মিটিং-এ বিষয়টি তুলে তদন্ত করার দাবীও তোলেনি।

 

তিনি বলেন এটা উদ্দেশ্যমূলকভাবে কেউ প্রচার করেছে কিনা এই দায়িত্ব তো আমি নিতে পারব না, তবে হতে পারে এটাকে অমূলকও বলব না কারন রাজনীতিতে এটা হামেশায় ঘটে থাকে। একইসঙ্গে বালুরঘাট পৌরসভার প্রশাসক বোর্ডে স্থান না পাওয়া বিষয়ে রাজেন শীল-( Chairaman ) এর করা মন্তব্যকে তিনি ব্যক্তিগত অভিব্যক্তি বলে অভিহিত করেন।