ভাতৃদ্বিতীয়া-কার্তিক পুজো-ইতু পুজোয় মেতেছে বাঙালি

0
9

নিজস্ব সংবাদদাতা ১৬ নভেম্বর ২০২০ :করোনা  আবহে সব উৎসবই এই বছর একটু অন্যরকম ভাবে পালন করা হচ্ছে। আজ ভাই ফোঁটা। কিছুটা হলেও অন্যবারের ন্যায় এবছর এই উৎসব ও পালন করতে হবে অন্যরকম ভাবে।

আজকের দিনে বড় দিদি, বোনেরা তাদের দাদা ও ভাইদের কপালে ফোঁটা দিয়ে তাঁদের দীর্ঘায়ু কামনা করে। “ভাই এর কপালে দিলাম ফোঁটা, যম দুয়ারে পড়ল কাঁটা,যুমুনা দেয় যমকে ফোঁটা আমি দিই আমার ভাইকে ফোঁটা।”বেশির ভাগ বছরই দিওয়ালির পরের দিন ভাই ফোঁটা পালন করা হয় থাকে। আজকের এই অনুষ্ঠানকে ভাতৃদ্বিতীয়াও বলা হয়ে থাকে।

 

তিথি অনুযায়ী এই বছর দই এর ফোঁটা দেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। আজ সকাল ৭টা ৪ মিনিটে তিথি লাগছে এবং শেষ হচ্ছে ১৭ তারিখ অর্থাৎ মঙ্গলবার ৩টে ৫৭ মিনিটে। গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা অনুযায়ী, তিথি শুরু সকাল ৯টা ৩ মিনিট ৪ সেকেন্ডে এবং তিথি শেষ ১৭ নভেম্বর সকাল ৬টা ৫৪ মিনিট ৫০ সেকেন্ডে ৷ তবে আজকে ভাইফোঁটা ছাড়াও রয়েছে কার্তিক পুজো, এবং ইতু সংক্রান্তি ৷ এই উত্‍সবের আরও একটি নাম হল যমদ্বিতীয়া। কথিত আছে, এই দিন মৃত্যুর দেবতা যম তাঁর বোন যমুনার হাতে ফোঁটা নিয়েছিলেন।অন্য মতে, নরকাসুর নামে এক দৈত্যকে বধ করার পর যখন কৃষ্ণ তাঁর বোন সুভদ্রার কাছে আসেন, তখন সুভদ্রা কৃষ্ণের কপালে ফোঁটা দিয়ে তাকে মিষ্টি খেতে দেন। সেই থেকে ভাইফোঁটা শুরু হয়।

 

আরও পড়ুন… ফেলুদার প্রয়াণে আগামীকাল বন্ধ সিনে জগৎ

তারপর থেকে যুগ যুগ ধরে আজকের দিনে ভাই বোনেরা মিলে এই উৎসব পালন করে আসছে। তবে এই বছর বাঙালি আজকের দিনে শুধু ভাই ফোঁটাই নয় তারসঙ্গে কার্তিক পুজো এবং ইতু পুজোতেও মেতেছেন একসঙ্গে।